আমাজন এফিলিয়েট মার্কেটিং কথা অনেকেই শুনেছেন। সারা বিশ্বজুড়েই এটি পরিচিত এবং অনলাইন আয়ের এটি একটি জনপ্রিয় এবং লাভজনক উপায়।

এফিলিয়েট মার্কেটিং কি?

​তবে অনেকেই শুধু শুনেছেন কিন্তু বিস্তারিত জানেননা। আবার অনেকেই এটি করতে আগ্রহী কিন্তু শুরু করার পূর্বে যে বিষয়গুলো সম্পর্কে পরিস্কারভাবে জানা প্রয়োজন তা জানেননা। ফলে একদল আগ্রহী শুরু করলেও অনেক ভুল ধারণা নিয়ে শুরু করেন এবং যেরকম ভেবেছিলেন সেরকম নয় বোঝার পরে হতাশ হয়ে ছেড়ে দিয়ে চলে যান! মাঝখান থেকে অনেক সময় এবং শ্রমের অপচয় হয়। আবার অনেকেই চটকদার বিজ্ঞাপনে আকৃষ্ট হয়ে হাজার ডলার ইনকামের আশায় প্রথমেই বিশ ত্রিশ হাজার টাকা খরচ করে নিস ওয়েবসাইট নিয়ে ফেলেন! সফল হলে ভালো কিন্তু না হলে হয়তো পস্তান। ওয়েবসাইট নেবেন ভালো কথা! প্রোফেসনালভাবে করতে হলে একসময় নিতেই হবে। তবে তার আগে অনেক বিষয় আছে যেগুলো পরিস্কার জেনেই এগুনো ভালো হবে। আশাকরি আমাজন এফিলিয়েট মার্কেটিং নিয়ে আমার এই টিউটোরিয়ালটি পড়লে বিষয়টি সম্পর্কে পরিস্কার ধারণা পাবেন এবং কাজ শুরু করতে চাইলে সঠিক ধারণা এবং গাইডলাইন নিয়েই শুরু করতে পারবেন। এছাড়াও এটি আপনার জন্য সত্যিই উপযুক্ত কাজ কিনা সেটিও ভালভাবে বুঝে নিতে পারবেন। আপনাদের কারো বিন্দুমাত্র উপকার হলেও লেখাটি সার্থক হবে। তাহলে চলুন আলোচনা শুরু করা যাক।

এফিলিয়েট মার্কেটিং

​সহজ কথায় এফিলিয়েট মার্কেটিং হলো কমিশন ভিত্তিক মার্কেটিং। সাধারণভাবে আপনি যদি কোনো কোম্পানিতে পার্মানেন্ট মার্কেটিং জব করেন তাহলে প্রতি মাসে একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা বেতন পাবেন কিন্তুু এফিলিয়েট মার্কেটিং করলে শুধু আপনার বিক্রয়ের উপর কমিশন পাবেন। যতো বেশি প্রোডাক্ট সেল হবে ততো বেশি টাকা কমিশন আসবে এবং অপরদিকে সেল না হলে কোনো কমিশন আসবে না তাই কোনো পেমেন্টও আসবেনা।
আমাজন এফিলিয়েট মার্কেটিং কি?​

আমাজন ডট কম ইউএসএর একটি বিখ্যাত অনলাইন শপিং কোম্পানি বা ইকমার্স কোম্পানি। এটি পৃথিবীর সবচেয়ে জনপ্রিয় এবং বৃহৎ অনলাইন স্টোর। আমাজন সুযোগ দিয়েছে তাদের এসোসিয়েট হয়ে এফিলিয়েট মার্কেটিং করার। অর্থাৎ আমাজনের ওয়েবসাইট থেকে আপনি যদি প্রোডাক্ট সেল করতে পারেন তাহলে আমাজন আপনাকে প্রোডাক্ট ভেদে বিভিন্ন রেটে কমিশন দেবে। তবে সম্পূর্ণ প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন হবে অনলাইনে। এটিই আমাজন এফিলিয়েট মার্কেটিং।

কেন আমাজন এফিলিয়েট মার্কেটিং করবেন?

কেন আমাজন এফিলিয়েট মার্কেটিং করবেন সেটি আপনার নিজস্ব ব্যাপার। তবে এটি অনলাইনে আয়ের একটি মাধ্যম। অনলাইনে আয়ের অনেক মাধ্যম রয়েছে। এরমধ্যে এফিলিয়েট মার্কেটিং অন্যতম একটি উপায়। বিস্তারিত জেনে যদি আপনার ভালো লাগে এবং করতে পারবেন বলে মনে হয় তাহলে অবশ্যই করবেন। তবে এটি ১০০% নিশ্চয়তা দিয়ে বলা যায় আপনি যদি আমাজনের টার্মস এন্ড কন্ডিশন মেনে কাজ করতে পারেন তাহলে আপনার ইনকামের টাকা নিশ্চিত পেয়ে যাবেন। আমাজন একটি নির্ভরযোগ্য প্রতিষ্ঠান তাই কোনোভাবে প্রতারণার স্বীকার হতে হবেনা এবং কোনো টাকাও আমাজনে ইনভেস্ট করতে হবেনা।


0 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *